নোতুন খবর.কম : বগুড়ার শেরপুরে বাসের জানালা দিয়ে হাত বের করে রাখা অবস্থায় বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের চাপায় ডান হাত বিছিন্ন হয়েছে মাকসুদা বেগম নামের এক গার্মেন্টস কর্মীর।মাকসুদা বেগম বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার ডোমনপুকুর গ্রামের এমদাদুল হকের স্ত্রী।
জানা গেছে, ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করেন মাকসুদা বেগম। ছুটি শেষে গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য রোববার (০৩-১১-১৯) বেলা ৩টার দিকে মাঝিড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে মা রিজিয়া পরিবহন নামের একটি বাসে ওঠেন। সিটে বসে মাকসুদা বেগম জানালা দিয়ে হাত বের করে রাখেন। মহাসড়কের রাজাপুর নামক স্থানে বিপরীতমুখী একটি ট্রাক বাসটি ঘেষে অতিক্রম করার সময় মাকসুদা বেগমের ডান হাত ট্রাকের ঘষায় কেটে নিচে পড়ে যায়।এরপর স্থানীয় লোকজন মাকসুদাকে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় । এরপর তার অবস্থার অবনতি হলে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মাকসুদার অবস্থা আশংকানক ছিল ।

শেরপুর থানার ওসি হুমায়ন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।